নিশ্চিছদ্র নিরাপত্তায় চিন আজ শুরু পাটি কংগ্রেস । - TBNEWS

Breaking

TBNEWS

explore the world news

Post Top Ad

READ ALSO

                                                             

Wednesday, 18 October 2017

নিশ্চিছদ্র নিরাপত্তায় চিন আজ শুরু পাটি কংগ্রেস ।

বেজিং, ১৭ অক্টোবর-মাঝে মাত্র দুদিন বাকি। চিনে কমিউনিস্ট পার্টি কংগ্রেসকে ঘিরে উন্মাদনা বাড়ছে ক্রমশ। অধিবেশন চলাকালীন যাতে কোনও রকম অগ্ৰীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য সতর্ক রয়েছে প্রশাসন। যেকোনও রকম জঙ্গি নাশকতা রুখতে কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে বেজিং। মুসলিম অধুষিত জিনজিয়াং প্রদেশে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কোনও কুঁকি নিতে চাইছে না। সরকার। নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে গোটা জিনজিয়াং প্রদেশকে। নিরাপত্তা ক্ষেত্রে কোনও রকম শিথিলতা দেখাতে চাইছে না। সরকার বলে সূত্রের খবৰ। বিশেষ বিশেষ এলাকায় নিরাপত্তা রাজধানী শহর ছাড়াও তিয়ানানমেন স্কোয়ারের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। পাঁচ বছর অন্তর অনুষ্ঠিত দলের পার্টি কংগ্রেস এবার এখানেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। তবে পার্টি কংগ্রেস চলাকালীন জঙ্গি নাশকতা রুখতে চিনা সরকার যে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাইলেন না। বিদেশমন্ত্রী লু কাং। তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি এড়িয়ে যান। উত্তরে জানান, তার কাছে এধরণের কোনও খবর নেই। তার মতে জিনজিয়াংয়ের মানুষ সুখে, শান্তিতে বসবাস করছেন। সেখানে কোনও রকম উত্তেজনা নেই। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ শান্তি রক্ষায় কোনও কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে বলে তার জানা নেই।
প্রসঙ্গত, এখানে হান সম্প্রদায়ের মানুষের বসবাস দিনে দিনে বাড়তে থাকায় গত পাঁচ বছর ধরে উণ্ডর মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে। অন্যদিকে, বেশ কিছু দিন ধরেই ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গি গোষ্ঠীর শাখা সংগঠন ইস্ট তুর্কিস্থান ইসলামিক মুভমেন্ট (ইটিআইএম) দেশে অস্থিরতা তৈরি করে রেখেছে। তাই ১৯ তম কমিউনিস্ট পার্টি অব চিনা (সিপিসি) সম্মেলনের আগে কোনও রকম কুঁকি নিতে চাইছে না কমিউনিস্ট সরকার। এবারের পার্টি কংগ্রেস শুরু হচ্ছে ১৮ অক্টোবর। পার্টি কংগ্রেসে বেশ কয়েকজন শীর্ষ স্থানীয় নেতার ভাগ্য নির্ধারণ হবে। সেই সঙ্গে প্রেসিডেন্ট জি জিনপিং আগামী পাঁচ বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট পদে বসবেন। কি না তারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ২০০২ সাল থেকে দ্বিতীয় বারের জন্য দলের সদস্য পদে মনোনিত হওয়ার নিয়ম চালু হয়। পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরও তাদের সদস্য পদ দেওয়া হয় । গতবারের ১৮ তম পার্টি কংগ্রেসও শুরু হয়েছিল নির্ধারিত সময়ে। তৎকালীন প্রেসিডেন্ট হু জিনতাও এবং প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও পরবতী প্রেসিডেন্ট হিসাবে জি জিনপিংয়ের হাতে ক্ষমতা তুলে দেন। সেই সময় জিনপিং ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। ৬৪ বছরের জি-র ছোট থেকেই রাজনৈতিক আবহে বড় হয়েছেন। তার বাবা ছিলেন উপ প্রধানমন্ত্ৰী জি

জোকািনজিয়ান। জি জিনপিংকে খুব বেশি দিন তৃণমূল স্তরে রাজনীতি করতে হয়নি। ১৮ তম পার্টি কংগ্রেসে তিনি সাধারণ সম্পাদকের পদে মনোনিত করে কংগ্রেস। পরে দেশের সেনাবাহিনীর সর্বোচ্চ পদে তাকে বসান ছ। তার শাসনকালে জি জিনপিং তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পদ সামলেছেন সাফল্যের সঙ্গে। সব স্তরের আধিকারিকদের নিয়ে তিনি দুনীতির >ি বরুদ্ধে লাগাতার প্রচার চালিয়ে ছিলেন। দুনীতির দায়ে ১ লক্ষ ৩৪ হাজার অফিসারকে শক্তি দিয়েছিলেন। চিনের ১৫ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও নেতা পাঁচ বছর ধরে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকার পর দ্বিতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে আসে। আগামী বুধবার থেকে শুরু হওয়া ১৯ তম পার্টি কংগ্রেসের দিকে তাকিয়ে আছে গোটা দেশ। পার্টি কংগ্রেস জি জিনপিংয়ের উত্তরসূরি হিসাবে কাকে নির্বাচিত করবেন। দলীয় সূত্রে খবর, ইতিমধ্যে 'কোর লিডার’ হিসাবে তার নাম প্রস্তাবিত করেছে দল। অন্যদিকে, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক স্তরে জল্পনা শুরু হয়েছে সাত সদস্যের সন্টান্ডিং কমিটির সদস্য পদ নিয়ে। বাকলমে চিনের সন্টান্ডিং কমিটির হাতেই থাকে দেশ চালানোর ক্ষমতা। তাই তার সদস্য করা হবেন সে দিকেই তাকিয়ে রয়েছে গোটা দেশ।

---------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------- If You have any Questions or Query You can freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন । #Don’t forget to share this post with your friends on social media

No comments:

Post a Comment

thanks for the comment

READ ALSO