রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত :ঢাকায় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ - TBNEWS

Breaking

TBNEWS

explore the world news

Post Top Ad

READ ALSO

                                                             

Monday, 23 October 2017

রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত :ঢাকায় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ

India will be next to Bangladesh in Rohingya crisis: Foreign Minister Sushma Swaraj in Dhaka/রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত :ঢাকায় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ {techxpertbangla.com}

ঢাকা ২২ অক্টোবর- ভারতের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়ে রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। এই সাক্ষাৎকারের সময় সুষমা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর হাতে মুক্তিযুদ্ধের কিছু স্মারক স্মৃতি তুলে দেন। এর মধ্যে একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বার ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে) বাংলাদেশ-ভারত যৌথ কমান্ডের কাছে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর আত্মসমর্পণের কয়েকটি দুর্লভ ছবিও রয়েছে। আজ রাত আটটার দিকে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সুষমা স্বরাজের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন, দুজনের মধ্যে আলোচনা হয় নানা বিষয়ে। এর পর করেন সংসদেও বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শক কমিশনের (জেসিসি) বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্ৰীয় অতিথি ভবন পদ্মায়। বৈঠকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে মায়ানমারের ওপর চাপ দিতে ভারতকে অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে যৌথ পরামর্শক কমিশনের (জেসিসি) বৈঠক শেষে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ প্রেস ব্রিফিং-এ একথা জানান। রাজধানীর সোনারগাঁ পাঁচটা পর্যন্ত এ বৈঠক চলে। সুষমা স্বরাজ বলেন, কোফি আন্নান কমিশনের প্রতিবেদনের বাস্তবায়ন চায়। ভারত। শরণার্থীদের ফিরিয়ে নেওয়াই সমস্যার একমাত্র সমাধান। তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটে ভারত বাংলাদেশের পাশে রয়েছে। তবে সুষমা স্বরাজ মনে করেন, রাখাইন সমস্যার সমাধানের
জন্যে সেখানকার আর্থ-সামাজিক তৈরি আছে। বাংলাদেশের জন্যে সেখানকার আর্থ-সামাজিক উন্নতি আছে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্ৰমন্ত্রী জানান তিস্তা সমস্যা ও নদনদীর জলবন্টন নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। অবশ্য এ সম্পর্কে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছু বলেননি। বৈঠকে দুই দেশ জ্বালানি ক্রয় ও তথ্য সম্প্রচার নিয়ে সহযোগিতার দুটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। প্রথমটি হচ্ছে ভারতের অল ইন্ডিয়া রেডওর সমঝোতা স্মারক | বেলা পৌনে দুটাের দিকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর বিশেষ বিমানে ঢাকা এসে পৌছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। জেসিসি বৈঠকে যোগ দিতেই তাঁর এই ঢাকা সফর। দুদিনের এই সফরসূচি অনিবার্যকারণে একদিন এগিয়ে আনা হয়েছে বলে জানা গেছে।২০১৪ সালের মে মাসে বিজেপি ক্ষমতায় আসার এক মাসের মধ্যে সুষমা। ঢাকা সফরে এসেছিলেন। কংগ্রেসআওয়ামি লিগ সম্পর্কের বিশেষ মাত্রা আর বাংলাদেশে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের কারণে তার সেই সফর নিয়ে যথেষ্ট কৌতুহল ছিল বাংলাদেশের রাজনৈতিক মহলে। বিশেষ করে। ২০০৯ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে পরের পাঁচ বছর। বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের বিশেষ মাত্ৰা’য় কোনও খাদ সৃষ্টি হবে কিনা, তা নিয়ে সরকারি মহলে সংশয় ছিল। আর অন্যদিকে বিজেপি ক্ষমতায় আসায় উৎসাহিত হয়েছিল। বিএনপি। তবে ঢাকা সফরের সময় সুষমা বলে যান,
কংগ্রেস আমলে দুই প্রতিবেশির সম্পর্কে যে অগ্রগতি হয়, সেটি ধরেই সম্পর্ক এগিয়ে নেবে বিজেপি । আজ বলা হয়েছে, দুদেশের সম্পর্ক এখন অত্যন্ত উচ্চ মাত্রা নিয়েছে। সুষমার সফরের মাত্র দুসপ্তাহ আগে সফর করে গেলেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জোঁটলি। অর্থমন্ত্রীর সফরের সময় সাড়ে চারশো কোটি ডলারের ঋণচুক্তি সই হয়। আগামীকাল সকালে সুষমা স্বরাজ বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনের নতুন চ্যান্সেরি ভবন উদ্বোধন করবেন। সেখানে ভারতের আর্থিক সহযোগিতায় ১৫টি প্রকল্পেরও উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। দুপুরেই দিল্লি ফিরে যাকেন।



twitter- ---------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------- If You have any Questions or Query You can freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন । #Don’t forget to share this post with your friends on social media

No comments:

Post a Comment

thanks for the comment

READ ALSO