মালির সামনে স্পেন । - TBNEWS

Breaking

TBNEWS

explore the world news

Post Top Ad

READ ALSO

                                                             

Monday, 23 October 2017

মালির সামনে স্পেন ।

Spain in front of Mali/মালির সামনে স্পেন /techxpertbangla.com

স্পেন ৩ ; ইরান ১ (সাইদ ক্যারিমি) (আবেলারুজ,
সারাজিও গোমেজ,
ইরান টোরেস) কোচি, ২২ অক্টোবর- রেকর্ড সংখ্যক দর্শক রবিবার জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে টিকিটাকা ফুটবল অথবা বল দখলে না রেখে সারাক্ষণ ছোট ছোট পাসে খেলা যা স্পেনের বৈশিষ্ট তা দেখার সঙ্গে ইউরোপের দলটি এক তরফা প্রাধান্য এবং অনুর্ধর্ব ১৭ বিশ্বকাপে এশিয়ার শেষ প্রতিনিধি ইরানের অসহায়ভাবে ছিটকে যাওয়া প্রত্যক্ষ করলো। স্পেন আগামী বুধবার সেমিফাইনাল খেলবে আফ্রিকার দল মালির বিরুদ্ধে। স্পেনের হয়ে অ্যাবেল রুজ ১৩ মিনিটে গোল করার পর সারাজিও গোমেজ এবং ফিরান টোরেসের করা গোলে ৬৯ মিনিট পর্যন্ত স্পেন ৩-০ গোলে এগিয়ে ছিল। অস্বাভাবিকভাবে রবিবার ডিফেন্সের ফুটবল খেললে ইরান। অনেকটা তার জন্যই স্পেন একছত্র প্রতিপত্তি দেখিয়ে এশিয়ার দলটির ওপর। ৭০ মিনিটে পরিবর্ত ফুটবলার সাইদ ক্যারিমি ইরানের পক্ষে একমাত্র গোলটি শোধ করে।
স্পেনের কোচ স্যান্টিয়াগো বেনিয়া এই গুরুত্বপূর্ণ নকআউট ম্যাচে অপরিবর্তিত দলই
রেখে দুটি উইংয়ে এবং সারাজিও গোমেজ এবং মিডফিল্ডে মহম্মদ মৌখ লিস এবং সিজার ম্যাচে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে খেলা দলটি থেকে তিনজনকে বসিয়ে এদিন দল নামান। ফর্মে থাকা সট্রাইকার আল্লাইয়ার সাইদ এবং হুসেন জাদে আক্রমণে আক্রমণে থাকলেও সাসপেন্ড হয়ে থাকা ইউনেস ডেলফিকে খেলাতে পারেনি
ইরান। স্পেন ম্যাচের শুরু থেকেই দ্রুত বল দখলে নিয়ে আশপাশে থাকা খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে ছোট ছোট পাসে খেলতে শুরু করে যেটা তারা বহুদিন করে আসছে। স্পেনের মধ্যে এই হাইভোলটেজ ম্যাচ নিয়ে কোনরকম স্নায়ুর চাপ ছিল না। তাই তারা ১৩ মিনিটে প্রথম গোল পেয়ে যায়। সারাজিও গোমেজ তার মাকরিকে ফাঁকি আসে এবং বক্সের মাঝখানে অরক্ষিত অবস্থায় দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাকেল রুজকে থু পাস দিলে রুজ তার দ্বিতীয় চেষ্টায় বল গোলে পাঠান। মহম্মদ মৌখি লিস এবং অ্যান্টনিও ব্র্যাঙ্কো গোটা মােঝমাঠে রাজত্ব করতে শুরু করেন। যার ফলে ইরানের মহম্মদ ঘোবে সাভি এবং মহম্মদ সারাফি এই দুজনই অন্তত প্রথম তিরিশ মিনিট সম্পূর্ণ অকেজো হয়েছিলেন। বিরতির দশ মিনিট বাকি থাকতে সিজার গিলবার্ট মাঝমাঠ থেকে উঠে এসে বক্সের মধ্যে পায়ে বল পেয়ে গেলেও ইরানের গোলরক্ষক আলি জাদে দ্রুত জায়গা সিজারকে আটকাতে চেষ্টা করেন। তার চেষ্টা আংশিক সফলও হয়। কারণ বল অন্যদিকে ছিটকে যায়। গোটা প্রথমার্ধেই স্পেন যে সেই তুলনায় ইরান একবারও স্পেনের রক্ষণকূহ ভেদ করতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু হতেই স্পেন আবার তাদের টিকিটাকা ফুটবলের ঝলক দেখাতে শুরু করে। ৬০ মিনিটের মাথায় তারা দ্বিতীয় গোলটিও পেয়ে যায়। সারাজিও গোমেজ গোটা পরিস্থিটিটা নিজের দখলে নিয়ে মাঝমাঠ থেকে যে দুরন্ত ভলিটি করেন তা ক্রস বারের ভিতরের দিকে লেগে সোজা গোলে ঢুকে যায়। ইরানের গোলরক্ষক আলি বলটি ধরার কোন সুযোগই পাননি। গোল অফ দ্য টুর্নামেন্টের দাবিদার গোমেজ সম্পানিস আরম্যাডার মধ্যে স্বক্তির আবহাওয়া এনে দেওয়ার পরই স্পেন তাদের তৃতীয় গোলটিও পেয়ে যায়। আসলে ইরান গোলশোধের জন্য এলোমেলো ভাবে মরিয়া আক্রমণ শুরু করায় যে জায়গা ফাঁকা হয়ে গিয়েছিল তারই সুযোগ নিয়ে স্পেন কাউন্টার অ্যাটাকে ওঠে। এমনই একটি পরিস্থিতিতে মহম্মদ মৌখ লিস ইঞ্চি মাপা একটি নিচু ক্রস সেন্টার করেন যা বক্সের মধ্যে সরাসরি ফেরান টোরেসের পায়ে গিয়ে পড়ে এবং টোরেস সহজেই তা গোলে পাঠান। ৩-০ এগিয়ে যাওয়াটা অবশ্যই স্পেনকে আত্মতুষ্টির চরমে পৌছে দিয়েছিল। তাই তিন মিনিটের মধ্যে তার একমাত্র গোলটি খেয়ে যায়। ইরানের ডিফেন্স থেকে উচু করে পাঠানো একটি লম্বা পাস বক্সের মধ্যে বক্সের মধ্যে স্ট্রাইকার আল্লা ইয়ার সাইদের মাথার ওপর চলে এলে হেড না করে সাইদ একটি কোেনাকুনি ফ্রিক করেন। সাইদ ক্যারিমি সই কাল পেয়ে স্পেনের গোলরক্ষককে দাঁড় করিয়ে রেখে বল জালে পাঠান (৩–১) || এই নিয়ে ষষ্ঠবার অনুৰ্ধৰ্ব সতেরো বিশ্বকাপ ফুটবলের সেমিফাইনালে উঠলো তারা ১৯৯১, ২০০৩, ও ২০০৭ সালে রানার্স হওয়া ছাড়াও ১৯৯৭ ও ২০০৯ সালে তৃতীয় স্থান পেয়েছিল। রবিবার ইরান যে আরও বেশি গোলে হারেনি তার জন্য তাদের গোলরক্ষক আলি জাদের পারফরমেন্সই আসল ঘটনা যে দ্রুত গতির পাসিং ফুটবল স্পেন দেখালো রবিবার তারপর এই টুর্নামেন্টে আফ্রিকার দল মালির বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে টিকিটাকাদেরই এগিয়ে রাখতে হচ্ছে।
twitter- ---------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------- If You have any Questions or Query You can freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন । #Don’t forget to share this post with your friends on social media

No comments:

Post a Comment

thanks for the comment

READ ALSO