পেয়ারা - TBNEWS

Breaking

TBNEWS

explore the world news

Post Top Ad

READ ALSO

                                                             

Thursday, 26 October 2017

পেয়ারা

পেয়ারা{www.techxpertbangla.com}
photo credit-INT



পেয়ারা (Psidium Guyava) পারেবত, রৈবত, আরেবতক, রৈবতক, মধুফল, অমৃত ফল ও পারেবতক এই সাতটি পেয়ারার নাম পৰ্যায়ক শব্দ। Guava এর ইংরাজী নাম। কুড়মালিতে একে বলে আঁজির। এটি একটি ফলকৃক্ষ। পেয়ার ফল, ফুল, পাতা, ছাল ওষুধ হিসাবে ব্যবহার্য। এটি মূলত: বায়ুদোষ নাশক ভেষজ সম্পদ। পেয়ারা গাছের বিভিন্ন অংশের প্রয়োগমাত্রা: ফল – এক থেকে দু’তোলা-বার থেকে চব্বিশ গ্রাম, ছাল ও পাতা – আধ থেকে এক তোলা – ছয় থেকে বার গ্রাম এবং ফুল – সিকি থেকে আধ তোলা – তিন থেকে ছয় গ্রাম পরিমাণ, প্রতিমাত্রা। অতিসার রোগের বমন, শিশুর অতিসার, ক্ষত, পাইয়োরিয়া – মুখক্ষত ও দীতের ব্যথা, তৃষ্ণা, জ্বর, আমাশা, মূৰ্ছা, ভ্ৰম, ক্লান্তি, বহুমূত্র, মলবদ্ধতা, গর্ভকালীন সংক্রমণ, মস্তিষ্কে রক্তসঞ্চালনে ব্যাঘাত ইত্যাদি রোগ অসুখে পেয়ারা উপকার সাধন করে। এর প্রয়োগ পদ্ধতি নিম্নরূপ: অতিসার রোগের কমন: পেয়ারা পাতা অথবা ফুল সিদ্ধ জলি (ন্ধাথ) সেবন অতিসার রোগের বমন নিবারণে উপকারী। শিশুর অতিসাের: শিশুর অতিসার (পাতলা পায়খানা বা পেটখারাপ)-এ, পেয়ারা গাছের কচি ছালের ক্কাথ (অর্ধমাত্রা) সেবন করালে ফলপ্রদ হয় ।দাঁতের রোগ পাইয়োরিয়া (দাঁতের মাড়ি থেকে রক্ত ঝরা), দাত ব্যথা ইত্যাদিতে পেয়ারা পাতা, ফুল বা ছালের হালকা গরম ব্ধাথ কবল কুলকুচি) করলে দীতের রোগ উপশম হয়। মুখরোগ, বিশেষত মুখক্ষতেও ওষুধটি প্রশমণকারী। দাঁত ও মুখের রোগে কচি পেয়ারা ডগা (নরম) চিবিয়ে মুখে ধারণ করা এ রোগ সারানোর আর একটি প্রচলিত উপায়। ক্ষত, পেয়ারা গাছের ছালের কাথের সাহায্যে প্রক্ষালন করলে পুরনো ক্ষত সারে। এটি পোড়া ঘা সারাতেও সক্ষম। প্রক্ষালনের পর ক্ষতস্থানে কচি পেয়ারা পাতার প্রলেপন ও বিধেয়। বহুমূত্ৰ: থেতো করা কচি পেয়ারা দশ-বার ঘণ্টা যাবৎ, চারগুণ জলে ভিজিয়ে, সেই জল সকালবেলা খালিপেটে নিয়মিত সেবন করলে বহুমূত্র পীড়ার উপশম হয়। কৃমি, তৃষ্ণ, সাধারণ জ্বর, আমাশা, মূৰ্ছা, ভ্ৰম, ক্লান্তি মলবদ্ধতা, ত্বক রোগ, অনিয়ন্ত্রিত রক্তচাপ, দৃষ্টিশক্তিহীনতা, গর্ভকালীন রোগ সংক্রমণ, মস্তিষ্কে রক্তসঞ্চালনে ব্যাঘাত প্রভৃতি অসুবিধা দূর করতে পেয়ারা এক সহায়ক ভেষজ । বয়স ভেদে পেয়ারার গুণভেদ হয়। কচি পেয়ারা কষায় রস, এটি সংগ্রহী। অর্ধপক্ক (ডাসা) পেয়ারা কষায়-মধুরঅল্পরসংযুক্ত, এটি রুচিকর কিন্তু অগ্নিমান্দকারক ও গুরুপাক। পাকা পেয়ারা মধুর ও অল্পরসংযুক্ত এবং প্রায় উসা পেয়ারার মতোই গুণবিশিষ্ট। পেয়ারার মধ্যে রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বিদ্যমান।



--------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------

If You have any Questions or Query You caan freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW

আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন ।


--------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------






---------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------- If You have any Questions or Query You can freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন । #Don’t forget to share this post with your friends on social media

No comments:

Post a Comment

thanks for the comment

READ ALSO