পরম্পরা বনৌষধি সেগুন । - TBNEWS

Breaking

TBNEWS

explore the world news

Post Top Ad

READ ALSO

                                                             

Thursday, 19 October 2017

পরম্পরা বনৌষধি সেগুন ।

সেগুন (Tectona Grandis) শাকবৃক্ষ, ত্রুকচপত্র, স্থির সার, গৃহদ্রুম খরাপতত্রর, শ্রেষ্ঠকাষ্ঠ, শরপত্র অৰ্জ্জুনোপম- এগুলো সেগুনের নাম পর্যায়ক শব্দ। এটি বৃক্ষজাতীয় একটি উদ্ভিদ। প্রধানত এর ছাল ওষুধ হিসাবে কাজে লাগে। এটি দ্বিদোষনাশক (কাফী ও পিত্ত) ভেষজ উদ্ভিদ। সেগুনের ব্যবহারিক মাত্রা = চাের আনা = তিন গ্রাম পরিমাণ। সেগুন বিবদ্ধতা (মলমূত্ৰাদি), কলক্ষয়, জ্বর, প্রদাহ, ক্লান্ত নিবারণার্থ নিম্নোক্ত উপায়ে প্রযোজ্য। বিবদ্ধতা : কিবদ্ধতা, বিশেষত মলমূত্ৰাদি বিবদ্ধতা দূর করার কাজে সেগুন গাছের ছালের ক্ৰাথ প্রতিমাত্রা তিনটি করে গোলমরিচ সহযোগে সেবন করলে উপকার পাওয়া যায়। এর ছাল চুর্ণ ও গোলমরিচের মিশ্রণও সমতুল উপকারী। বলক্ষয় পূরক ভেষজ সম্পদ হিসাবেও উল্লিখিত উপায়ে ওষুধটি কাজ করে। জ্বর , সেগুন ছাল চুৰ্ণ বা ক্লাথ প্রতিমাত্রা সিকিগ্রাম পরিমাণ পিপুল চুৰ্ণ মিশিয়ে রান্না করা কুলখ কলায়ের হাল্কা গরম জুসের সঙ্গে সেবন করলে সাধারণ জ্বরহর ভেষজ হিসাবে বেশ কাজ করে। প্রদাহ : সেগুন গাছের ছাল বাটা প্রলেপন ও সেবনে প্রদাহ নিবারণ হয়। ক্লান্তি : সেগুন গাছের ছাল ভিজানো জল বা চুর্ণের সঙ্গে গুড় (অন্তত এক বছরের পুরাতন) মিশিয়ে শরবত আকারে সেবন করলে ক্লান্তি-শ্রান্তি দূর হয়।


twitter- ---------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------- If You have any Questions or Query You can freely ask by put Your valuable comments in the COMMENT BOX BELOW আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নিচে COMMENT BOX এ আপনার মূল্যবান মন্তব্যগুলি করতে পারেন । #Don’t forget to share this post with your friends on social media

No comments:

Post a Comment

thanks for the comment

READ ALSO